সিলেটে ফার্মেসীতে ঔষধ প্রশাসনের অভিযান ৯০ হাজার টাকা জরিমানা “বিদেশি ঔষধ জব্দ

সিএনবাংলা ডেস্কঃ সিলেটের চৌহাট্রা ও পুর্ব দরগাহ গেইট এলাকায় ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সিলেট ও জেলা প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।

এতে দুটি ফার্মেসীতে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা ও ২৫ হাজার টাকা মুল্যের বিদেশি আনরেজিস্টার্ড ঔষধ জব্দ করা হয়েছে।

১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক শিকদার কামরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে অভিযানে সিলেট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম অংশ নেন।

এসময় বিদেশি আনরেজিস্টার্ড ঔষধ সংরক্ষনের দায়ে মেসার্স মতিন ট্রেডার্স ও ফয়সল ফার্মেসীতে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানের সময় দু’ফার্মেসী থেকে আনরেজিস্টার্ড বিদেশি ২৫ হাজার টাকা মুল্যের ঔষধ জব্দ করা হয়েছে।

সুত্রে জানাজায় সরকারি অনুমোদন চাড়া আনরেজিস্টার্ড ঔষধ বিদেশ ফেরত লোকজন দেশে নিয়ে আসেন। বিভিন্ন ফার্মেসীতে ঔষধ ও ইন্সুলিন ইত্যাদি কমদামে বিক্রি করেন। ফার্মেসীর ব্যাসায়ীরা বেশি লাভ করার লক্ষে এই ঔষধ কিনেন। কিন্তু বিদেশ থেকে ঔষধ ও ইন্সুলিন লাকিজের মধ্যে দিয়ে আসার সময় কোন তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ হয়না।

এগুলো ব্যাবহার করে রোগী সুস্থ হওয়ার পরির্বতে অনেক ক্ষতির সম্মুখীন ও প্রতারিত হচ্চেন প্রতিনিয়ত। রোগীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত ও প্রতারণার শিকার না হন সেদিকে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সিলেটের সুদৃষ্টি কামনা করছেন ভুক্তভোগী রোগীগন।

আলাপকালে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক শিকদার কামরুল ইসলাম জানান, বিদেশি আনরেজিস্টার্ড ঔষধ সংরক্ষনের দায়ে মেসার্স মতিন ট্রেডার্স ও ফয়সল ফার্মেসীতে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা এবং দু’ফার্মেসী থেকে আনরেজিস্টার্ড বিদেশি ২৫ হাজার টাকা মুল্যের ঔষধ জব্দ করা হয়েছে। তিনি বলেন জনস্বার্থে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

সিএনবাংলা/এসকেএআর

Sharing is caring!

 

 

shares