ছাতকে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে সেচ্চার প্রতিরোধ কমিটি

স্টাফ রিপোর্ট:: সুনামগঞ্জের ছাতকে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে পৌরসভার তরুণদের নিয়ে গড়া কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কমিটি। করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুধুর থেকে এই প্রতিরোধ কমিটি কাজ শুরু করলেও ছাতক পৌরসভার মেয়র মো. আবুল কালাম চৌধুরীর নির্দেশনায় জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করেন কমিটির সদস্যরা।

জানা যায়, গত ১৩ জুলাই ছাতক পৌরসভার জননন্দিত মেয়র মো. আবুল কালাম চৌধুরীর নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে মৃদুল দাসকে টিম লিডার ও মুফতী আল-আমীন আব্দুল খাইয়ুমকে ডেপুটি টিম লিডার করে করে ২৭ সদস্যের ছাতক পৌরসভা কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হয়।

এরইমধ্যে পৌর মেয়র মো. আবুল কালাম চোধুরীর নির্দেশনায় স্বেচ্ছাসেবক কমিটির সদস্যরা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সচেতনতামূলক কার্যক্রম ধারাবাহিক ভাবে পরিচালনা করে আসছেন। নগরীর রাস্তা-ঘাট, পাড়া-মহল্লায় জীবানুনাশক স্প্রে, মাস্ক বিতরণ, ত্রাণসামগ্রী বিতরণ, পৌর এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থান সমুহে সাবান দিয়ে হাত ধুয়াসহ বিভিন্ন জনসচেতনতা মূলক কাজ করেছেন কমিটির সদস্যরা।

সচেতনতামূলক প্রচার অভিযানের অংশ হিসেবে টিমের সদস্যরা সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মানার পরামর্শ প্রদান, মাস্ক ব্যবহারের অনুরোধ, সঠিকভাবে মাস্ক পরিধান, নিদিষ্ট সময়ে দোকানপাট ও প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা, দোকানগুলোতে দ্রব্যমূল্যের তালিকা প্রকাশ, বহিরাগত ব্যক্তিদের হোম বা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টান নিশ্চিত, আক্রান্ত ব্যক্তিদের পরামর্শ প্রদান ও খাবার সরবরাহ, অসহায় ব্যক্তিদের ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া, লকডাউন নিশ্চিত করাসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে সফলভাবে পরিচালনা করে যাচ্ছেন।

টিম লিডার মৃদুল দাস জানান, “ছাতক পৌরসভার জন নন্দিত মেয়র মো. আবুল কালাম চৌধুরী মহোদয়ের নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে পৌর এলাকার যুবকদের নিয়ে এই টিম গঠন করা হয়েছে। একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে পৌরসভার মানুষদের নিরাপদে রাখতে। যেকোন মানুষের যেকোনো প্রয়োজনে আমরা সবার আগে এগিয়ে যাচ্ছি আমরা সবাই। আমাদের টিমের প্রতিটি সদস্য নিজেদের স্বাস্থ্য পরিসেবা সম্পর্কে সচেতন। নিজেরা সুস্থ্য থেকে সবাইকে সুস্থ্য রাখাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। আর এ ব্যাপারে আমাদের মেয়র মহোদয় খুবই আন্তরিক। উনার নির্দেশনা মোতাবেক কাজ করে পৌরসভার নাগরিকদের সুরক্ষা প্রদানে আমরা সফলভাবে এগিয়ে যাবো এটাই প্রত্যাশা।

Sharing is caring!

 

 

shares