অনলাইন বইপড়া উৎসবের পুরস্কার বিতরন,বই সংকটে সাহস যোগায়: সেলিনা হোসেন

স্টাফ রিপোর্ট: সিলেটে বইপড়ুয়াদের সংগঠন ইনোভেটর আয়োজিত অনলাইন বইপড়া প্রতিযোগিতার ভার্চুয়াল পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন বলেছেন, বই সংকটে সাহস যোগায়। বই মানবিক সমাজ গঠনের অন্যতম নিয়ামক।

তিনি বলেন, করোনাকালীন দুঃসময়ে গৃহবন্দী মুহুর্তকে বইপড়ার মাধ্যমে ইনোভেটর যেভাবে আলোকিত ও অর্থবহ করে তুললো তা সত্যি অনবদ্য। সেলিনা হোসেন আরো বলেন, বর্তমান সমাজে যে মূল্যবোধের অবক্ষয় চলছে, আইন প্রয়োগ করে তা থেকে নিস্কৃতি পাওয়া যাবে না, সেজন্য প্রয়োজন জ্ঞান,নীতি ও প্রজ্ঞাবান প্রজন্ম, প্রয়োজন মানবিক – হৃদয়বান একটি তরুণ সমাজ। ইনোভেটর এর এই বইপড়ানোর আন্দোলন সেই কাংখিত সমাজ গঠনে অনন্য ভূমিকা রাখতে পারে।

ঢাকা থেকে ভার্চ্যুয়ালি অংশ নিয়ে বরেণ্য এ কথা সাহিত্যিক বলেন, মূল্যবোধের চর্চা পরিবার থেকেই শুরু হয় আর বই পড়ার মতো চমৎকার একটি বিষয়ে সন্তানদের উৎসাহিত করতে বাবা-মাকেও এগিয়ে আসতে হবে। কেননা, বই সকল জ্ঞানের আধার।

আজ ৮ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার, সন্ধ্যায় এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সম্মানিত অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল এবং জেলা পরিষদ, সিলেট এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিত সিনহা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইনোভেটর এর মুখ্য সঞ্চালক, সিটি কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইনোভেটর এর নির্বাহী সঞ্চালক প্রণবকান্তি দেব। ইনোভেটর এর সদস্য ঈশিতা ঘোষ চৌধুরী প্রথার সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন ইনোভেটর এর প্রধান সমন্বয়ক প্রভাষক সুমন রায়, প্রতিষ্ঠাকালীন সংগঠক মবরুর আহমদ সাজু, অনলাইন বইপড়া প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের পক্ষে মহাশ্বেতা দেব পুরকায়স্থ শশী ও আইনুন ফারহান যাহরা।

অনুষ্ঠান সার্বিক সমন্বয় করেন ইনোভেটর এর সমন্বয়ক আশরাফুল ইসলাম অনি।

করোনা সংকট এর শুরু থেকেই সাপ্তাহিক অনলাইন বইপড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ইনোভেটর। এ পর্যন্ত মোট ২২টি পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে যেখানে মোট ৮৭৬ জন শিক্ষার্থী দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অংশ নিয়েছে।

সিএনবাংলা /শোভন

Sharing is caring!

 

 

shares