সিলেটের এমসি কলেজে ধর্ষণে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করলেন অর্জুন লস্কর

সিএনবাংলা ডেস্কঃ সিলেটের ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিচ্ছেন তিন আসামি। তারা হলেন প্রধান আসামি সাইফুর এবং অন্য দুই আসামি অর্জুন লস্কর ও রবিউল ইসলাম।

সবশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তাদের মধ্যে অর্জুন লস্কর গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার ব্যাপারে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আজ শুক্রবার বিকেলে তারা ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য কুমার চৌধুরী।

সন্ধ্যা ৬টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আদালতে অর্জুনের জবানবন্দি নিচ্ছিলেন। অপর দুই আসামিরও জবানবন্দি রেকর্ড করার কথা রয়েছে বলে পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে রিমান্ড শেষে কড়া নিরাপত্তায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট-১ আদালতে হাজির করা হয় মামলার প্রধান আসামি সাইফুর, অর্জুন ও রবিউলকে। গত সোমবার তাদের ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট-২ আদালত।

এ ছাড়া মামলায় গ্রেফতারকৃত আরও ৫ আসামির পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। শনিবার (আগামীকাল) মামলায় গ্রেপ্তারকৃত আসামি রাজন, আইনুল ও মুহিবুর রহমান রনিকে রিমান্ড শেষে আদালতে তোলার কথা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার এমসি কলেজে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী। রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বামীর কাছ থেকে ওই তরুণীকে জোর করে তুলে নিয়ে ছাত্রাবাসে ধর্ষণ করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় কলেজের সামনে তার স্বামীকে বেঁধে রাখা হয়।

এ ঘটনায় ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে শাহপরান থানায় মামলা করেন। মামলায় ছাত্রলীগের ছয় নেতাকর্মীসহ অজ্ঞাত আরো তিনজনকে আসামি করা হয়।

সিএনবাংলা /শোভন

Sharing is caring!

 

 

shares