এমসি কলেজ শিক্ষার্থীদের ১০ দফা দাবি নিয়ে মানববন্ধন

সিএনবাংলা ডেস্ক :: এমসি কলেজে গণধর্ষণের ঘটনায় সকল সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনের সম্মিলিত মানববন্ধন ও ১০ দফা দাবি উত্থাপন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে কলেজের প্রধান ফটকে মানববন্ধন এবং পরবর্তীতে কলেজ প্রশাসনের কাছে ১০ দফা দাবি উত্থাপন করেন শিক্ষার্থীরা।

দাবিগুলো হলো-১। এমসি কলেজে গত ২৫শে সেপ্টেম্বর রাতে ঘটা গণধর্ষণ ও নির্যাতনের সাথে জড়িত সকল অভিযুক্তদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করা ও সুষ্ঠু তদন্ত নিশ্চিত করা। ২। সকল অপরাধীর ছাত্রত্ব বাতিল ও সার্টিফিকেট হ্রদ করা। ৩। ক্যাম্পাস ও হোস্টেলের সার্বিক ও সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। ৪। কলেজ হোস্টেলকে সাবেক ছাত্র ও বহিরাগত মুক্ত করা। ৫। পুরো কলেজ ক্যাম্পাস ও হোস্টেল সিসিটিভি ফুটেজের আওতায় নিয়ে আসা। ৬। পুরো কলেজ হোস্টেলে রাতের বেলায় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা। ৭। কলেজ ও হোস্টেলে নিরাপত্তা বেষ্টিত সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা। ৮। কলেজের সকল ছাত্রছাত্রীদের জন্য একটি উন্মুক্ত অভিযোগ বক্স তৈরি করা, যেখানে যে কেউ নির্যাতন বা সহিংসতা বা যে কোন ধরণের সমস্যার শিকার হলে স্বাধীনভাবে অভিযোগ করতে পারে এবং সেই অভিযোগ বক্সের অভিযোগ সমূহকে তদন্ত ও পর্যাপ্ত ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য কলেজ প্রশাসন কর্তৃক একটি নিরপেক্ষ কমিটি তৈরি করা। ৯। যে দুজন কর্মচারীকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে তাদেরকে পুনর্বহাল করা হোক। ১০। সর্বোপরি কলেজের সকল শিক্ষার্থী, পরীক্ষার্থী, বহিরাগত দর্শনার্থী, সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও অরাজনৈতিক সংগঠনের সদস্যবৃন্দের কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থান কালীন সময়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

মোহনা সাংস্কৃতিক সংগঠনডপ আহবানে এই কর্মসূচীতে অংশ নেয় থিয়েটার মুরারিচাঁদ, মুরারিচাঁদ কবিতা পরিষদ, মুরারিচাঁদ কলেজ রোভার স্কাউট, রাষ্টবিজ্ঞান সোসাইটি, ইতিহাস ফোরাম, কওমি স্টুডেন্ট ফোরাম, সোসিওলোজি ক্লাব, তাহিরপুর ছাত্রকল্যাণ পরিষদ, ছাতক ছাত্রকল্যাণ পরিষদ, জগন্নাথপুর ছাত্র কল্যাণ পরিষদ, ইকোনমিক ক্লাব, চেতনা সংঘ এবং লাইফ ফর লাইফ।

এসময় এমসি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ তাদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেন।

সিএনবাংলা/জীবন

Sharing is caring!

 

 

shares