দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সভা

সিএনবাংলা  ডেস্ক :  সিলেট জেলা বিএনপির আহবায়ক  কামরুল হুদা জায়গীরদার বলেছেন, দেশে একটি সরকার ক্ষমতাসীন থাকলেও আইনের শাসন বলে কিছু নেই। সরকার নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। যার কারণে একজন সরকারী গাড়ী চালক পর্যন্ত শত কোটি টাকার মালিক বনে যাচ্ছে। সরকারের দুর্নীতির সংবাদে মিডিয়া পাড়া এখন সয়লাব। এই সরকারের হাত থেকে দেশের মানুষকে মুক্ত করে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হলে একটি কার্যক্রর আন্দোলনের বিকল্প নেই। এই আন্দোলন গড়ে তুলতে হলে তৃনমূল বিএনপিকে সংগঠিত করে সকল স্তরে দলের কার্যক্রম গতিশীল করতে হবে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশে গণতন্ত্রপুনরুদ্ধার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হবে।

তিনি শুক্রবার সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক  কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। উপজেলা বিএনপির আহবায়ক  আলহাজ¦ সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সদস্য আব্দুল লতিফ খানের পরিচালনায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলার তেতলী ইউনিয়নের আহমদপুরে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি, সাবেক উপজেলা সভাপতি ও উপজেলা আহবায়ক  কমিটির ১নং সদস্য হাজী মোঃ সাহাব উদ্দিন, সিলেট জেলা বিএনপির  আহবায়ক  কমিটির সদস্য, সাবেক জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আহবায়ক  কমিটির সদস্য হাজী মোঃ তফজ্জুল হোসেন, তাজরুল ইসলাম তাজুল, আব্দুস শহীদ পংকী, হাজী মো. নামর আলী, বজলুর রহমান ফয়েজ, মোঃ আত্তর আলী, মোঃ জাকারিয়া খান, জিল্লুর রহমান শোয়েব, শাহ মাহমদ আলী, মুহিবুর রহমান মুহিব, আশরাফুল আলম বাহার, মইনুল ইসলাম মঞ্জুর, মনিরুল ইসলাম তুরন, শামীম সিদ্দিকী, আলহাজ¦ হাবিবুর রহমান, হাজী মোঃ আসাদ, মোজাম্মেল হোসেন পিরু, শাহেদ খান স্বপন, আব্দুল মালেক মল্লিক, ফখরুল ইসলাম রুমেল,আমিনুর রহমান চৌধুরী সিফতা ও মো. ফজলে রাব্বি আহসান।

সভায় উপজেলার আওতাধীন বিভিন্ন ইউনিটের কার্যক্রম গতিশীল করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের ব্যাপারে আলোচনা করা হয়। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় তৃনমূল বিএনপিকে সংগঠিত করার ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সিএনবাংলা /শোভন

Sharing is caring!

 

 

shares