কলাপাড়ায় ড্রেন ভেঙ্গে পাকা ভবন নির্মানে জলাবদ্ধতা,মহাদূর্বিপাকে নাগরিকরা

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি : কলাপাড়ায় পৌরশহরের উপজেলা সড়ক সংলগ্ন জগন্নাথ আখড়াবাড়ী এলাকায় গুরুত্বপূর্ন একটি সড়কের ড্রেন ভেঙ্গে পাকা ভবন নির্মানে ড্রেন থেকে স্বাভাবিক পানি প্রবাহ বন্ধ হয়ে গেছে । দীর্ঘ ৫/৬ মাস ড্রেন থেকে পানি নিস্কাশন না হওয়ায় ব্যাপক জলাবদ্ধতার সৃৃষ্টি হয়ে আশেপাশের ঘর- বাড়ীতে দীর্ঘ দিনের জমে থাকা পচাঁ-গন্ধ পানি ঢুকে দূর্র্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে নাগরিকদের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, পৌরশহরের কর্মকার পট্রি এলাকার  গোপাল চন্দ্র কর্মকার’র ছেলে কৃষ্ণ কর্মকার দীর্ঘদিন ধরে ইউ.এন.ও সড়ক সংলগ্ন জগন্নাথ আখড়াবাড়ী এলাকায়  ড্রেনের  ওপর নির্মানকালীন  ইট, বালু রড রেখে ড্রেনটি ভেঙ্গে  ফেলেছে, জগন্নাথ আখড়ানাট মন্দির পরিচালনা  পষর্দ থেকে বলা সত্তে¡ও তিনি  তা আমলে নিচ্ছেনা। টানা ৩ দিনের প্রবল বর্ষনে ড্রেন থেকে পানি সরতে না পেরে বাসা-বাড়ীতে ময়লা দুর্গন্ধযুক্ত পানি ঢুকে পড়েছে।

ভুক্তভোগী  অধ্যাপক চঞ্চল সাহা এ প্রতিবেদককে বলেন, নিজের সুবিধার জন্য অন্যের সমস্যা সৃষ্টি করার  অধিকার কারো নেই। বিষয়টি স্থানীয় পৌরসভার দেখা উচিত বলে তিনি  উল্লেখ করেন । আরেক ভুক্তভোগী বিশ্বজিৎ সেন বলেন, তাদের বাসার ভিতরেও প্রচুর পরিমান পানি আটকে পড়েছে । নিজেদের স্বার্থে সরকারী ড্রেন ভাঙ্গা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ বলে তিনি উল্লেখ করেন।

অভিযুক্ত কৃষ্ণ কর্মকার’র সাথে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও  তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এ প্রসঙ্গে কলাপাড়া পৌরমেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার বলেন, তিনি ঢাকায়
আছেন। এলাকায় এসে বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে এ প্রতিবেদককে জানান।

সিএনবাংলা /শোভন

Sharing is caring!

 

 

shares