১৯ মাসের শিশু মাস্ক না পরায় ফ্লাইট বাতিল!

সিএনবাংলা ডেস্ক :: যাত্রীর ১৯ মাস বয়সী সন্তানের মুখে মাস্ক না থাকায় পুরো ফ্লাইট বাতিল করেছে কানাডার একটি এয়ারলাইনস। বাতিল করেই ক্ষান্ত হয়নি তারা, এ জন্য পুলিশও ডাকে তারা।

মঙ্গলবার কানাডার ক্যালগেরি বিমানবন্দরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি।

বিবিসি জানায়, কানাডার ক্যালগেরি থেকে টরন্টোর উদ্দেশে উড়ে যাওয়ার কথা ছিল ওয়েস্টজেট কোম্পানির ফ্লাইট-৬৫২। এ সময় সাফওয়ান চৌধুরী নামে ওই ফ্লাইটের এক যাত্রীর ১৯ মাস বয়সী মেয়ের মুখে মাস্ক না দেখে বাধা দেন ফ্লাইটসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। মেয়েটি কোনোমতেই মাস্ক পরতে চাচ্ছিল না। বিষয়টি নিয়ে শোরগোল বাধলে ফ্লাইটটিই বাতিল হয়ে যায়।

ওয়েস্টজেটের দাবি, একটি পরিবার যাত্রাকালে মাস্ক পরতে অস্বীকৃতি জানালে ফ্লাইটটি বাতিল করা হয়েছে। কারণ তাদের করোনাকালীন নিয়মানুযায়ী, দুই বছরের বেশি বয়সী যাত্রীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।

তবে ওই পরিবারের কর্তা সাফওয়ান চৌধুরীর দাবি, ওয়েস্টজেট তার ১৯ মাস বয়সী মেয়েকে জোর করে মাস্ক পরাতে চেয়েছিল।

তিনি অভিযোগের সুরে বলেন, স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নিয়ে ফ্লাইটের জন্য অপেক্ষা করছিলাম। সেই সময় আমার তিন বছরে মেয়ে মাস্ক খুলে নাস্তা করছিল। ফ্লাইটটি যাত্রার আগমুহূর্তে ওয়েস্টজেটের একাধিক কর্মী আমার স্ত্রীর কাছে এসে জানান, আমার দুই মেয়েকেই মাস্ক পরতে হবে। এ সময় ওয়েস্টজেটের কর্মীরা আমাদের সঙ্গে কঠোর আচরণ করে। তারা আমার ১৯ মাস বয়সী বাচ্চার দিকে ফিরে বলে যে- ফ্লাইটের প্রত্যেক যাত্রীকে মাস্ক পরতে হবে নয়তো ফ্লাইট ছাড়বে না।’

সাফওয়ান চৌধুরী আরও বলেন, আমার বড় মেয়ে মাস্ক খুলে নাস্তা খাওয়ার বিষয়ে ওয়েস্টজেটের কর্মীরা এতটাই আগ্রাসী আচরণ করেছিল যে, তারা পুলিশ ডাকে। এমনকি বাচ্চার মুখে মাস্ক না থাকায় আমাদের বিমানবন্দর ত্যাগ করতে বলে। তাদের কথা না মানলে গ্রেফতার করিয়ে কারাগারে পাঠানোর হুমকিও দেয়া হয়। এ সময় কথা না বাড়িয়ে সপরিবারে বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে যাই আমি।

এ ঘটনায় ওই ফ্লাইটের অন্যান্য যাত্রী বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। তিন বছরের কম বয়সী শিশুকে মাস্ক পরানো নিয়ে ওয়েস্টজেটের এ আচরণকে বাড়াবাড়ি হিসেবেই দেখছেন তারা।

একটি শিশুর মাস্ক না পরার ঘটনায় পুরো ফ্লাইট বাতিল হয়েছে বিষয়টি ভাবতে পারছেন না তারা।

সিএনবাংলা/জীবন

Sharing is caring!

 

 

shares