সিলেট নগরীর যুবক সাউথ আফ্রিকায় নিখোঁজ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দক্ষিণ আফ্রিকায় নিখোঁজ হওয়ার ১৩ দিন অতিবাহিত হলেও কোন খোঁজ মিলছে না চার প্রবাসী বাংলাদেশীর। এমতাবস্থায় চরম দুশ্চিন্তায় দিনরাত পার করছেন স্বজনেরা। দেশের পরিবার পরিজন প্রতিনিয়ত তাদের সন্ধানে পথ চেয়ে আছেন। কিন্তু কোথাও কোন সুখবর নেই। এখনো কোন ক্লু কিংবা মোটিভ পাওয়া যাচ্ছে না।

গত ২৬ আগস্ট সন্ধ্যার পর দক্ষিণ আফ্রিকার উইনবার্গ থেকে বেলকম শহরে একসাথে আসার পথে নিখোঁজ হন নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ নিবাসী সাইফুল ইসলাম পলাশ, ফরহাদ আহমদ, মহসিন আহমদ ও সিলেট নগরীর সওদাগরটুলার বাসিন্দা রাসেল আহমদ।

বেলকম আসার পথিমধ্যে তাদের গাড়ির সামনে হরিণ ধাক্কা খেয়ে পড়ে যায়; এসময় তারা হরিণটি শিকার করে সেই ছবি তাদের বন্ধুদের কাছে পাঠান। এরপর থেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন নি কেউ। পরবর্তীতে বিভিন্ন পুলিশ স্টেশন এবং হাসপাতালেও খোঁজাখুজি তাদেরকে পাওয়া যায় নি।

এরইমধ্যে গত ৩০ আগস্ট সন্ধ্যার পর নিখোঁজ পলাশের চাচাতো ভাইয়ের কাছে খবর আসে, তাদেরকে কাগজপত্রের জন্য প্রিটোরিয়ায় আটকে রাখা হয়েছে। কিন্তু পরদিন বাংলাদেশ পরিষদের নেতৃবৃন্দ সহ প্রিটোরিয়া ডিপোর্টেশন সেন্টারে গিয়েও তাদের খোঁজ পাওয়া যায় নি।

এদিকে, চার বাংলাদেশী নিখোঁজের পর উইনবার্গ পুলিশ স্টেশনে মামলা করা হলে এখন পর্যন্ত পুলিশ ও অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থা তাদের খোঁজ পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কোথাও খোঁজ না পেয়ে নিখোঁজ পরিবারের সদস্য সহ স্বজনদের মাঝে আতঙ্ক আর দুশ্চিন্তা বেড়েই চলছে। দীর্ঘ ১৩ দিন পরও তাদের খোঁজ না পাওয়া কিংবা অপহরণকারী চক্রের কোন সন্ধান না পাওয়া বাংলাদেশ কমিউনিটি সহ সর্বত্র অজানা এক আতঙ্ক বিরাজ করছে।

 

সিএনবাংলা/এসকেএআর

Sharing is caring!

 

 

shares