সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দাউদপুর গাংপারের দাদি-নাতির দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দাউদপুর গাংপারের হাসন আলী’র স্ত্রী বিবিজান (৬৫) ও প্রবাসী আহমদ আলীর পুত্র রাহাদ আহমদ (৭) এর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বাদ মাগরিব দক্ষিণ সুরমা উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের দাউদপুর জামে মসজিদ সংলগ্ন শাহী ঈদগা ময়দানে মরহুমদের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযার নামাজে ইমামতি করেন কাওছার হামিদ ফয়েজ।
দোয়া পরিচালনা করেন দাউদপুর জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফিজ মাওলানা আব্দুল্লাহ। জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্তানে মরহুমদের লাশ দাফন করা হয়।

মরহুমদের নামাজে জানাযায় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, আইনজীবী, জনপ্রতিনিধি, সমাজসেবী, যুব সমাজের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।

উলেখ্য গত ৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধা সাড়ে ৬ টায় সিলেট -মোগলাবাজার সড়কের লালমাটিয়ায় বাস চাপায় বিবিজান ও তার নাতি রাহাদ আহমদের মৃত্যু হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান নিহত বিবিজান সাত বছরের নাতিকে নিয়ে লালমাটিয়া এলাকার তার নিকট আত্মীয়ের বাড়ি থেকে বের হয়ে নিজ বাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথে লালমাটিয়া নামক স্থানের সড়কে পৌছালে ভাটেরা অভিমুখী বাস (নম্বর ঢাকা মেট্রো জ -০৪০১৯৩) তাদেরকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে বিবিজান (৬৫) ও তার নাতি রাহাদ আহমদ (৭) এর মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে মোগলাবাজার থানা পুলিশ দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে বাসটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে। এদরনের মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোকাহত পরিবারের প্রতি এলাকাবাসী গভীর সমবেদনা জানিয়ে মরহুমদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

 

সিএনবাংলা/এসকেএআর

Sharing is caring!

 

 

shares