রাণীগঞ্জ গণহত্যা দিবস পালিত

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নে রাণীগঞ্জ বাজারে ১৯৭১ সালের পহেলা সেপ্টেম্বর লাইন ধরিয়ে র্নিবিচারে হত্যাযজ্ঞ চালায় পাকহানাদার বাহিনী। পাকহানাদার বাহিনীদের সহযোগিতা করে দেশীয় রাজাকার চক্র।এসব পাকহানাদার বাহিনীর হাতে প্রাণ হারাতে হয়শতাধিক নিরোপরাধ সাধারণ মানুষকে। তাদের স্মরণে প্রতিবছরের মতো এবারোও নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মঙ্গলবার (পহেলা সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক র্অপণ করা হয়।এ সময় জগন্নাথপুর উপজেলার এসিস্ট্যান্ট প্রোগ্রামার আশীষ চক্রর্বতী, পাইলগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মখলিছ মিয়া, রানীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সামাদ সহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

পরে দুপুর ১২টায় রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক র্অপণ করা হয় এ সময় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানা, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আব্দুল গফুর, ইউপি সদস্যা মোছা. রুকসানা বেগম, গ্রাম আদালতের সহকারী শরিফুল ইসলাম, সাংবাদিক গোলাম সারোয়ার সহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। পরে ইউনিয়ন পরিষদের হল রুমে আঞ্চলিক শোক দিবসের আলোচনা সভায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানা সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আব্দুল গফুর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য তেরা মিয়া তেরাব, আব্দুল কালাম, আব্দুল জলিল, সাংবাদিক গোলাম সারোয়ারপ্রমুখ। এ সময় সদস্যা এলাছি বিবি,সদস্য নাজমুল হোসেন,সমাজ সেবক মিজানুর রহমান মিজান সহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।এদিকে প্রতিবছরের ন্যায় এবারোও শহিদ গাজী ফাউন্ডেশন পক্ষ থেকে শহিদদের স্বরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্টিত হয়।

দোয়া ও মিলাদ মাহফিল র্পূবক আলোচনা সভায় রানীগঞ্জ
মাদ্রাসা মসজিদের মোতায়াল্লী হাজী আরজুমিয়া সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রানীগঞ্জ দারুচ্ছুন্নাহ হাফিজিয়া আলিম মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক হাজী কাজী নজরুল ইসলাম নিজামী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রানীগঞ্জ মাদ্রাসা মসজিদের ইমাম আব্বাস আলী।

সি এন বাংলা /শোভন

Sharing is caring!

 

 

shares