সুইডেনে কোরআন পোড়ানোর ঘটনায় ব্যাপক বিক্ষোভ

সিএনবাংলা ডেস্ক :: সুইডেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মালমোতে উগ্রবাদীদের কোরআন পোড়ানোর ঘটনায় ক্ষুব্ধ মুসলিমরা ব্যাপক বিক্ষোভ দেখিয়েছে। রয়টার্স জানিয়েছে, শুক্রবার সকালে ডানপন্থি উগ্রবাদীরা শহরটিতে কোরআনের কপি পোড়ায়।

স্থানীয় একটি দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার মালমোর একটি পাবলিক স্কয়ারে তিন উগ্র খৃষ্টান কোরআনের একটি কপিতে লাথি মেরে অসাম্মান জানায়।

এর প্রতিবাদে প্রায় ৩০০ মানুষ একটি বিক্ষোভে অংশ নেয়। সেখান থেকে ২০ জনকে আটক করা হয়েছে।বিবিসি জানিয়েছে, মালমোর অভিবাসী অধ্যুষিত রোজেনগার্ড শহরতলীতে কোরআন পোড়ানোর এই ঘটনা ঘটে।

ডেনমার্কের কট্টর দক্ষিণপন্থী রাজনীতিক রাসমুস পালাদুন কোরআন পোড়ানোর ওই ঘটনায় অংশ নিতে চেয়েছিলেন, কিন্তু সুইডিশ পুলিশ তাকে ঢুকতে দেয়নি। তবে তার সমর্থকরা এরপরও কোরআন পোড়ানোর ঘটনায় অংশ নেয়।

রাসমুস পালাদুন কট্টর দক্ষিণপন্থী স্ট্রাম কুর্স দলের নেতা। ডেনমার্কে বর্ণবাদ এবং অন্যান্য অপরাধে তাকে এক মাসের জেল দেয়া হয়েছিল। তার দলের সোশ্যাল মিডিয়া চ্যানেলে ইসলাম বিরোধী ভিডিও পোস্ট করার অভিযোগে তার সাজা হয়।

সুইডেনে বসবাসরত বাংলাদেশী সাংবাদিক তাসনীম খলিল জানিয়েছেন, একটি সাইকেল চালানোর রাস্তায় গোপনে এরা কোরআন পুড়িয়েছে। এই ঘটনাটি তারা নিজেরাই ভিডিও করে একটি ওয়েবসাইটে আপলোড করে।

তিনি বলেন, যারা এই কাজ করেছে, তারা এজন্যে একটি হাস্যকর যুক্তি দিচ্ছে। তারা বলছে, মতপ্রকাশের স্বাধীনতার জন্য তারা এই কাজ করছে। অথচ সুইডেনের আইন অনুযায়ী এটা বেআইনি, কারণ এর মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট ধর্মের মানুষের প্রতি ঘৃণার প্রকাশ ঘটানো হচ্ছে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা
সিএনবাংলা/জীবন

Sharing is caring!

 

 

shares