বিজয় দিবসে সিলেটে ছাত্রশিবিরের বর্ণাঢ্য র‌্যালী

বিজয় ঐক্যের, বিভক্তির নয় এই স্লোগানকে সামনে রেখে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে নগরীতে বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির সিলেট মহানগর শাখা।

শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) সকালে নগরীর বন্দরবাজার থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বর্ণাঢ্য র‌্যালীটি জিতু মিয়ার পয়েন্টে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। নগর সেক্রেটারি সিদ্দিক আহমদের সঞ্চালনায় র‌্যালী পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদ সদস্য ও সিলেট মহানগর সভাপতি আব্দুল্লাহ আল-ফারুক।

র‌্যালী পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সিলেট মাহানগর সভাপতি আব্দুল্লাহ আল-ফারুক বলেন, সন্মানিত সিলেটবাসী বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র শিবির সিলেট মহানগরের পক্ষ থেকে আপনাদেরকে বিজয়ের শুভেচ্ছা। সাম্য মানবিক মর্যাদা আর সামাজিক ন্যায় বিচারের লক্ষ্যে ১৯৭১ সালে যে বিজয় অর্জন করেছিলাম,আমাদের সে বিজয় আজ জালেম কবলে আবদ্ধ। আমরা দেখতে পাচ্ছি, বিজয়ের মাসে সীমান্তে আমার ভাইয়ের লাশ।আমাদের কষ্টার্জিত টাকা লুট করে বিদেশে নেয়া হচ্ছে। আমরা শুনতে পাচ্ছি শহীদ নোমানী ভাইয়ের মায়ের বুক ফাটা চিৎকার। ব্যারিস্টার আরমানের মায়ের আহাজারি। বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরারের মায়ের কান্নার ধ্বনি।

তিনি তাঁর বক্তব্য আরো বলেন, প্রিয় উপস্থিতি আমরা উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করেছি,বর্তমান সরকার বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধা পরিবারের সদস্য, সিলেটের কৃতি সন্তান, আমীরে জামাত ডা. শফিকুর রহমানকে অন্যায় ভাবে গ্রেফতার করেছে। অবিলম্বে আমাদের জননেতা ডা.শফিকুর রহমানকে মুক্তি দিতে হবে।আল্লামা সাঈদীকে মুক্তি দিতে হবে।শিক্ষা ব্যবস্থায় ইসলাম শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করতে হবে।বিজয়ের মাসেই সকল রাজবন্দীদের মুক্তি দিতে হবে।অন্যথায় বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র শিবির দেশের ছাত্র জনতাকে সাথে নিয়ে চূড়ান্ত বিজয়ের আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে

বিজয় র‌্যালী ও সমাবেশে সিলেট মহানগর ছাত্রশিবিরের নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড শিবিরের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা অংশগ্রহন করে।

Sharing is caring!

 

 

shares