আন্দোলনের মুখে পানির বিল কমালো সিসিক

নিউজ ডেস্কঃ সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) হঠাৎ করেই পানির দাম বাড়িয়ে দ্বিগুণ করায় এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নগরবাসী । এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে সিলেট নগরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ কর্মসূচীও পালন করেছেন তারা। এমন পরিস্থিতিতে প্রায় ৪ মাস পর পানির বিল কমিয়েছে সিসিক। তিন ক্যাটাগরিতে ৪ স্তরের ডায়ামিটারে ১শ থেকে ৫শ টাকা পর্যন্ত পানির বিল কমানো হয়েছে ।

বুধবার সিসিক পরিষদের এক বৈঠকে পানির বিল কমিয়ে নতুন বিলের প্রস্তাব করা হয়। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সম্মতির ভিত্তিতে পরে সেটি  চূড়ান্ত করা হয়। বুধবার সন্ধ্যায় জরুরি সাংবাদিক সম্মেলন করে পানির বিল কমানোর সিদ্ধান্ত জানান মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।সিলেট সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ও ২৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন বিল কমানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আজ (বুধবার) দুপুরে পরিষদের এক জরুরি বৈঠকে পানির বিল কমানোর প্রস্তাব করা হয় এবং সিদ্ধান্তটি চূড়ান্তও করা হয়।

সিসিকের নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন থেকে আবাসিক সংযোগে প্রতি মাসে আধা ইঞ্চি ডায়ামিটারের (ব্যাস) লাইনে বিল ৩০০ টাকা, পৌনে এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে বিল ৬০০ টাকা এবং এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে ১ হাজার ২শ টাকা করা হয়েছে।বাণিজ্যিক সংযোগে আধা ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে মাসিক বিল ৭০০ টাকা, পৌনে এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে ১১০০ টাকা ও এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে বাণিজ্যিক গ্রাহকদের ক্ষেত্রে মাসিক বিল ২ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
প্রাতিষ্ঠানিক সংযোগে আধা ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে মাসিক বিল ৭০০ টাকা, পৌনে এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে ১১০০ টাকা এবং এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে বাণিজ্যিক গ্রাহকদের ক্ষেত্রে মাসিক বিল ২ হাজার ৫ শ টাকা দিতে হবে।

এছাড়া সরকারি সংযোগে আধা ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে মাসিক বিল ৭০০ টাকা, পৌনে এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনে ১১০০ টাকা ও এক ইঞ্চি ব্যাসের লাইনের ক্ষেত্রে মাসিক বিল ১ হাজার ২০০ টাকা করা হয়েছে।

সিএনবাংলা/সাকিল

Sharing is caring!

 

 

shares