ছাতকে সিলেট শিক্ষা বোর্ডের পরিচয় দিয়ে কলেজ ছাত্রের সাথে প্রতারণা

মীর আমান মিয়া লুমান, ছাতকঃ ছাতকে সিলেট শিক্ষা বোর্ডের পরিচয় দিয়ে কলেজ ছাত্রের সাথে প্রতারনা করে বিকাশ প্রতারক। জাউয়াবাজার ডিগ্রী কলেজের ইন্টার ১ম বর্ষের ছাত্র মেহেদী হাসান ইমন(১৮) এ বিকাশে প্রতারণার শিকার হয়েছে। সে উপজেলার চরমহল্লা ইউনিয়নের খরিদিচর গ্রামের মো. আব্দুল হামিদের পুত্র। শনিবার (২৮ আগস্ট) বিকালে মেহেদী হাসান ইমনের মোবাইল নাম্বারে অজ্ঞাতনামা মোবাইল নাম্বার(০১৮৮৭৫৭৭৭৫৮, ০১৮১৭৪২১৬৩৪) থেকে কল দিয়ে উপবৃত্তির কথা বলে প্রলোভন দেখিয়ে বিকাশের নাম্বার, পিন ও ভেরিফিকেশন কোড হাতিয়ে নেয় বিকাশ প্রতারক।

পরে তার বিকাশ নাম্বারে ২০ হাজার ৪০০ টাকা ক্যাশ ইন করতে বলে ওই প্রতারক। প্রতারকের কথামতো মেহেদী হাসান ইমন তার বিকাশ নাম্বারে ২০ হাজার ৪০০ টাকা ক্যাশ ইন করে। টাকা ক্যাশ ইন করার পরপরই ওই অজ্ঞাতনামা প্রতারক বিকাশ নাম্বার থেকে সব টাকা ক্যাশ আউট করে নিয়ে যায়। টাকা হাতিয়ে নেয়ার পরপরই মেহেদী হাসান ইমনের মোবাইল নাম্বারকে ব্লক করে দিয়েছে ওই প্রতারক। এ ঘটনায় মেহেদী হাসান ইমনের পিতা মোঃ আব্দুল হামিদ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তিনি জানান, পুলিশ এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেবে বলে তাকে আশ্বস্ত করেছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পুলিন চন্দ্র রায় বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের উপবৃত্তির টাকা দেওয়ার নাম করে দেশজুড়ে একশ্রেণির প্রতারক চক্র প্রতারণায় নেমেছে। তিনি উপবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের এ ব্যাপারে সচেতন থাকতে এবং কোন অবস্থাতেই উপবৃত্তি প্রাপ্ত বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার প্রকাশ না করার জন্য বলেছেন।

Sharing is caring!

 

 

shares