কানাইঘাটে বাড়িতে ঢুকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা; কিশোরীসহ আহত ৩

সিএন বাংলা ডেস্ক: আজ বৃহস্পতিবার দুপুর আনুমানিক দেড়টায় কানাইঘাটের সড়কবাজারের লন্তিরমাটির চৌধুরী বাড়িতে হামলা করেছে একদল দুর্বৃত্ত। এতে তাসনিম হাসান সাকিব (২৩), রাজিব হাসান হাসিব (১৭) ও নাদিয়া আক্তার তারিন (১৪) নামের এক কিশোরী গুরুত্বর আহত হয়েছে। আহতদের প্রথমে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করেন।

আহত তিনজনকেই ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে আবুল কালাম চৌধুরী সশরীরে উপস্থিত থেকে কানাইঘাট থানায় নাম উল্লেখসহ সাত জন এবং অজ্ঞাত ৩/৪ জনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা দাখিল করেছেন।

যাদের নাম উল্লেখ করে মামলা করা হয়েছে তারা হচ্ছেন, ১. নিজাম উদ্দিন (৩০), ২. আলীম উদ্দিন (২৮), ৩. জহির উদ্দিন (২৫), ৪. আলমগীর প্রকাশ ধলাই (২২) সবার পিতা আব্দুন নূর, ৫. বুরহান উদ্দিন (৩৫) পিতা মৃত আব্দুল আওয়াল, ৬. শাহেদ আহমদ (২০) পিতা আব্দুল হান্নান, ৭. তাসনিম হাসান (২০) পিতা রইছ উদ্দিন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের থেকে জানা যায়, রাজিব হাসান হাসিব (১৭) গোয়ালঘরে কাজ করার সময় দশ বারো জনের একটি দল অতর্কিতভাবে তার উপর হামলা করে। ভিক্টিমকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেয়া হয়েছে। এতে তাসনিম হাসান সাকিব (২৩) ও নাদিয়া আক্তার তারিন (১৪) ভিক্টিমকে সাহায্য করতে এগিয়ে এলে তাদের উপরেও হামলা করা হয়। হামলায় মি. সাকিবেরও মাথা দা দিয়ে কুপ মারে আর নাদিয়া আক্তার তারিনের হাত ভেঙে দেয়া হয়। এসময় ভিক্টিমের বাড়িতে এরা ছাড়া প্রাপ্তবয়স্ক কেউ ছিলো না। জানা যায়, বিবাদী নিজাম উদ্দিন (৩০) বেশ কিছু আগে থেকেই বাদী আবুল কালাম চৌধুরীর ছেলেদের হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিলো।

এ সময় কানাইঘাট থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন বলে বাদীকে আশ্বাস দেন।

Sharing is caring!

 

 

shares