আর-রাহমান এডুকেশন ট্রাস্ট ইউ.কের পক্ষ থেকে শতাধিক বন্যার্ত মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

 

বিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ

মানবতার_কল্যাণে_আমরা_আপনাদের_পাশে শ্লোগানকে ধারণ করে এগিয়ে যাওয়া মানবতাবাদী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আর-রাহমান এডুকেশন ট্রাষ্ট’ ইউ কে বিশ্বনাথ, সিলেট, গত-২৬ জুলাই ২০২০, রবিবার, এলাহাবাদ রহমান মনজিলে আর-রাহমান এডুকেশন ট্রাস্ট ইউ.কের পক্ষ থেকে আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে শতাধিক বন্যার্ত মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন- সিলেট -২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য মোকাব্বির খান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, খাজাঞ্চী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব তালুকদার গিয়াস উদ্দিন।

আর-রাহমান এডুকেশন ট্রাস্ট সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা মুখলিছুর রহমান এর সভাপত্বিতে ও সেক্রেটারী মাসুদ আহমেদ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে কালামে হাকীম থেকে তেলাওয়াত করেন, হাফিজ কয়েছ আহমদ।
আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে শতাধিক বন্যার্ত মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর নুর, তোফাজ্জুল হোসেন ভান্ডারী, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, মাওলানা আবুল বশর মোঃ ফারুক, যুক্তরাজ্য প্রবাসী নাজমুল ইসলাম, বিশিষ্ট সমাজসেবক শহিদ আহমদ, এলাহাবাদ ইসলামিয়া আলিম মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক এ টি এম নুর উদ্দিন, এলাহাবাদ ইসলামিয়া আলিম মাদরাসার প্রফেসর আলতাবুর রহমান, সিনিয়র শিক্ষক মাও: ফারুক আহমদ ,শরীফ আহমদ রাজু, আমির উদ্দিন মেম্বার, সিরাজ উদ্দিন আহমদ, বিশ্বনাথ থানার এস.আই মোজাম্মেল হোসেন, মাও ফারুক আহমদ, তেলিকোন গ্রামের মুতাওয়াললী হাজী আবুললেইছ.মুরববী গৌছ মিয়া .হাজী জবেদ আলী. আছকির আলী,এহসানুর রহমান, মাহফুজুর রহমান পীর, আমিনুর রহমান, আবিদুর রহমান, হাফিজ মাহমুদুর রহমান প্রমুখ।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, গরিব-অসহায় মানুষকে দান-সহযোগিতা করা অনেক বড় সাওয়াবের কাজ। বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে বিশ্বব্যাপী অনেক মানুষ খাদ্য-সামগ্রীসহ নানা অভাব ভোগ করছে। ইসলাম এসব দুর্যোগ ও মাহমারির সময় অসহায়দের সহযোগিতা করার নির্দেশনা দেয়।
গরিব-অসহায় এবং কর্মক্ষম-ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো শুধু মানবিকতার পরিচয়ই নয় বরং তা সাওয়াবের কাজও বটে। অসহায়দের দান-সহযোগিতায় রয়েছে এমন সওয়াব, যার মাধ্যমে আল্লাহর দয়া ও করুণা বর্ষিত হয়। এতে আল্লাহ তাআলা বান্দার জন্য রিজিকের ভান্ডার খুলে দেন।
বক্তারা আরো বলেন, ক্ষুধার্তকে খাবার খাওয়ানো সর্বোত্তম আমল। ক্ষুধার্ত ব্যক্তিকে খাবার দান করা ইসলামের অন্যতম নির্দেশনা। কুরআন-সুন্নায় ক্ষুধার্ত ব্যক্তিকে খাবার দেয়ার বিষয়টি বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে।
আল্লাহ তাআলা বলেন-‘ আমি তাকে দুটি পথ প্রদর্শন করেছি। (মানুষকে এত গুণবৈশিষ্ট্য ও মেধা দেয়া সত্ত্বেও) সে (ধর্মের) দুর্গম গিরি পথে প্রবেশ করল না। তুমি কি জান দুর্গম গিরিপথ কী? (তা হচ্ছে) দাসমুক্তি। অথবা দুর্ভিক্ষের দিনে নিকটাত্মীয় ইয়াতীমকে, অথবা দারিদ্র-ক্লিষ্ট মিসকীনকে খাদ্য দান করা।‘ (সুরা বালাদ : আয়াত ১০-১৬)
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামও ক্ষুধার্ত ব্যক্তিকে খাবার দেওয়ার বিষয়টি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে উল্লেখ করেছেন। ‘মানুষের কল্যাণ সংশ্লিষ্ট যত কাজ আছে, তার মধ্যে সর্বাপেক্ষা শ্রেষ্ঠ ও সর্বোত্তম কাজ হলো ক্ষুধার্তকে খাবার দেয়া।
হাদিসে এসেছে-হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, এক ব্যক্তি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করলেন, হে আল্লাহর রাসুল! ইসলামে কোন জিনিসটি সর্বোত্তম। তিনি বললেন, ক্ষুধার্তকে (দরিদ্র-অসহায়) খাদ্য খাওয়াবে। চেনা-অচেনা সবাইকে সালাম দেবে। (বুখারি)

আর রাহমান এডুকেশন ট্রাস্ট এর ভুয়শী প্রশংসা করে বক্তারা বলেন, এ সংগঠনের উদ্যেগে গৃহিত সময়পযোগী বিভিন্ন কর্মসূচীর মাধ্যমে এলাকার সাধারণ, অসহায় মানুষ অনেক উপকৃত হচ্ছে। বক্তারা সংগঠনের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন।

Sharing is caring!

 

 

shares