কিভাবে বুঝবেন আপনার স্যানিটাইজারটি আসল না নকল

সিএনবাংলা ডেস্ক:: এই করোনা ভাইরাসের সময় হ্যান্ড স্যানিটাইজার আমাদের দৈনন্দিন জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠেছে। বিশেষজ্ঞ এবং চিকিৎসকরাও সময়মতো স্যানিটাইজার ব্যবহার করার পরামর্শ দিচ্ছেন।

তাই, সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক, কিন্তু তারপরে সবথেকে প্রয়োজনীয় জিনিসটি হল, হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

আমাদের হাত জীবাণুমুক্ত রাখার ক্ষেত্রে হ্যান্ড স্যানিটাইজার খুবই দরকারি জিনিস। কমপক্ষে ৬০ শতাংশ অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা উচিত সকলের।

তবে বর্তমানে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে স্যানিটাইজারের চাহিদা অতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ার কারণে, মার্কেটে নকল ও নিম্নমানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রি হওয়া শুরু হয়েছে। বাজার থেকে কেনা সব হ্যান্ড স্যানিটাইজার এখন নিরাপদ নয়।

এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে মানুষের কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হল, তারা যে স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন তা আসল কিনা তা শনাক্ত করা। তাই, আজ আমরা আপনাকে এই আর্টিকেলের মাধ্যমে এমন তিনটি সহজ টিপস বলব, যার সাহায্যে আপনি তৎক্ষণাৎ বুঝতে পারবেন যে আপনার স্যানিটাইজারটি আসল না নকল।

১) টিস্যু পেপার বা টয়লেট পেপার টেস্ট

একটি টিস্যু পেপার নিয়ে তা সমতল জায়গায় রাখুন। এরপর একটি পেন দিয়ে এর মাঝে একটি বৃত্ত আঁকুন। তারপর ওই বৃত্তের ভিতরে কয়েক ফোঁটা হ্যান্ড স্যানিটাইজার ঢালুন।

যদি পেনের কালিটি ম্লান হতে শুরু করে এবং ছড়িয়ে পড়ে, তবে এর অর্থ হল আপনার হ্যান্ড স্যানিটাইজারটি নকল। তবে যদি বৃত্তটি যেমন ছিল তেমনই থাকে এবং কাগজটি দ্রুত শুকিয়ে যায়, তবে এর অর্থ হল আপনার হ্যান্ড স্যানিটাইজারটি গুড কোয়ালিটি এবং কার্যকর।

২) ময়দা বা আটা টেস্ট

আপনি ময়দা বা আটা ব্যবহার করেও হ্যান্ড স্যানিটাইজার পরীক্ষা করতে পারেন। একটি পাত্রে কিছুটা ময়দা নিন এবং এতে কিছুটা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিন। এরপর ময়দাটি ভালো করে মাখুন। আপনি যদি খুব সহজে ময়দার তালটি ঠেসতে পারেন, ঠিক যেমন করে জল দিয়ে মাখেন, তবে এর অর্থ হ্যান্ড স্যানিটাইজারটি নকল।

৩) হেয়ার ড্রায়ার টেস্ট

এই পরীক্ষাটি করার জন্য একটি হেয়ার ড্রায়ার এবং একটি ছোট বাটি লাগবে। একটি বাটিতে কয়েক ফোঁটা হ্যান্ড স্যানিটাইজার ঢালুন। এবার একটি হেয়ার ড্রায়ার নিন এবং স্যানিটাইজারটি শুকানোর চেষ্টা করুন। স্যানিটাইজারটি যদি খাঁটি হয় তাহলে তা শুকোতে পাঁচ সেকেন্ডের বেশি সময় নেওয়া উচিত নয়। যদি স্যানিটাইজার শুকিয়ে না যায়, তবে এটি আসল নয়।

সিএনবাংলা/একেজে

Sharing is caring!

 

 

shares