দেশে একদিনে মৃত্যু ৪২, শনাক্ত ২৭৪৪

 

সি এন বাংলা ডেস্কঃ  করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩০ জন পুরুষ ও ১২ জন মহিলা এবং ২১ জন ঢাকা বিভাগের ও বাকিরা অন্যান্য বিভাগের। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট মৃত্যু হলো ২ হাজার ৭৫১ জনের। একই সময়ে নতুন করে আরও ২ হাজার ৭৪৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা শনাক্ত হলেন ২ লাখ ১৩ হাজার ২৫৪ জন।

দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর তালিকা দিনে দিনে দীর্ঘ হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এ তালিকায় যুক্ত হয়েছেন আরও ৪২ জন। এ নিয়ে ভাইরাসটির সংক্রমণে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল দুই হাজার ৭৫১ জনে। এছাড়া একই সময়ে নতুন করে দুই হাজার ৭৪৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে সর্বমোট দুই লাখ ১৩ হাজার ২৫৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হলেন।

আজ বুধবার (২২ জুলাই) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

দেশের মোট ৮০টি ল্যাবে করোনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে তিনি জানান, আজ সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১১ হাজার ৯৭৬টি। আগের কিছু নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৫০টি নমুনা। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ১০ লাখ ৬৬ হাজার ৬০৯টি।

তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরো এক হাজার ৮০৫ জন। সবমিলিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ১৭ হাজার ২০২ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৪ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

গেল ২৪ ঘণ্টা আক্রান্ত শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৭৭ শতাংশ এবং এপর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ। তবে শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৯ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৩০ জন, নারী ১২ জন। এ পর্যন্ত মৃত দুই হাজার ৭৫১ জনের মধ্যে পুরুষ দুই হাজার ১৬৮ জন (৭৮ দশমিক ৮১ শতাংশ) এবং নারী ৫৮৩ জন (২১ দশমিক ১৯ শতাংশ)।

গেল ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের বয়স বিভাজনে বলা হয়, মৃতদের মধ্যে ১১ থেকে ২০ বছর বয়সের একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে আটজন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছর বয়সসীমার মধ্যে রয়েছেন একজন।

মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২১ জন, চট্টগ্রামে আটজন করে, খুলনা, রাজশাহী ও সিলেট বিভাগে তিনজন করে এবং রংপুর ও বরিশাল বিভাগে একজন রয়েছেন।

গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন বৈশ্বিক মহামারীতে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। সেদিন তিনজন আক্রান্ত শনাক্ত হওয়ার কথা জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। এরপর মার্চ মাস শেষে ৫০ জনের মতো শনাক্তের কথা জানা গেলেও এ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে আক্রান্তের হার বাড়ে খুব দ্রুত।

সিএনবাংলা /মান্না

 

Sharing is caring!

 

 

shares